1. admin@bdchannel4.com : 𝐁𝐃 𝐂𝐡𝐚𝐧𝐧𝐞𝐥 𝟒 :
বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০৯:১২ অপরাহ্ন

ঈশ্বরগঞ্জে কোটি টাকা ইজারা বকেয়া আদায়ে গ্রেফতারি পরোয়ানা

উবায়দুল্লাহ্ রুমি, স্টাফ রিপোর্টার, ঈশ্বরগঞ্জ
  • প্রকাশিত: সোমবার, ১৩ মে, ২০২৪
  • ২৬ বার পড়া হয়েছে

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে ১৪৩০ বঙ্গাব্দের হাট-বাজার ইজারার বকেয়া টাকা আদায়ে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারী করেছেন সার্টিফিকেট অফিসার। উপজেলার ১০টি হাট-বাজারের ৯ জন ইজারাদারের নামে পরোয়ানা জারি করা হযেছে। 

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, গত ১০ই মার্চ ২০২৪ ইং তারিখে ৯জন ইজারাদারের নামে মামলা করা হয় এবং ২৩ এপ্রিল ২০২৪ তারিখে তাদের নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারী করা হয়। পরোয়ানা জারীর দিন ৮ ফর্দের গ্রেফতারি পরোয়ানা ও একই আকারের আদেশের অনুলিপি প্রেরণ করে পরোয়ানা তামিল করে প্রতিবেদন প্রেরণের জন্য ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) উপজেলা নির্বাহী অফিসার স্বাক্ষরিত পত্রে অনুরোধ করা হয়।  তবে পরোয়ানা জারীর ১৩মে পর্যন্ত ২১দিন হয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। 

গ্রেফতারি পরোয়ানাভুক্ত আসামী ইজারাদাররা হলেন, উপজেলার পলাশকান্দা তহ বাজারের ইজারাপ্রাপ্ত শহীদ এগ্রো ফার্ম। যার বকেয়া ১ লক্ষ ২৮ হাজার ১শ টাকা। একই বাজারের একই ইজারাদারের নামে বরাদ্দ গো-হাটা ইজারার বকেয়া ৬ লক্ষ ৫২ হাজার ২শ ১৫ টাকা। 

উপজেলার উচাখিলা বাজারের গো-হাটার ইজারাদার শফিউল আজমের কাছে বকেয়া ৩২ লক্ষ ৮৪ হাজার ৩শ ৬টাকা। সরিষা ইউনিয়ন কৃষি বাজারের ইজারাদার মো. জাকারিয়ার বকেয়া ২১ লক্ষ ৩৩ হাজার ৩শ ৩২ টাকা ।লক্ষীগঞ্জ গো-হাটা বাজারের ইজারাদার খোকন মিয়ার কাছে ১৫ লক্ষ ১৮ হাজার ৭শ ৫০ টাকা। ধীতপুর দক্ষিণ বাজারের ইজারাদার মাজাহারুল ইসলামের কাছে বকেয়া ১২লক্ষ ৭৪ হাজার ৪শ ৫১ টাকা। সোহাগী বাজারের ইজারাদার আজিজুল হকের বকেয়া ৫লক্ষ ১৪ হাজার ১শ ৩০ টাকা। শাহগঞ্জ বাজারের ইজারাদার আবু বকর সিদ্দিকের বকেয়া ৪ লক্ষ ৯৯ হাজার ১শ ৪৩ টাকা। সূর্যের বাজারের ইজারাদার রফিকুল ইসলামের বকেয়া ২ লক্ষ ৮০ হাজার ৬শ ৬২ টাকা এবং মধুপুর গো-হাটা বাজারের ইজারাদার শাহজাহান ফকিরের কাছে বকেয়া ১লক্ষ ৩৬ হাজার ৪শ ৫০ টাকা। 

ইজারার সর্বমোট ১কোটি ৪ লক্ষ ২১হাজার ৫শ ৩৯ টাকা আদায়ে সচেষ্ট উপজেলা প্রশাসন । 

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ মাজেদুর রহমান বলেন, গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়েছে ,আসামী গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যহত রয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আরিফুল ইসলাম প্রিন্স বকেয়া আদায়ে সার্টিফিকেট মামলার বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: বাংলাদেশ হোস্টিং