নান্দাইলে প্রেমিকের চাচাতো ভাইকে কুপালো প্রেমিকার চাচা, আটক ৩

নান্দাইল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি।।

0
36

ময়মনসিংহের নান্দাইলে প্রেমিকের চাচাতো ভাই আমিনুল ইসলাম (২২)কে বাড়িতে ডেকে নিয়ে কুপালো প্রেমিকার চাচা আবুল কালাম ওরফে হিরাম মাস্টার।

সোমবার, ১ মে সকাল সাড়ে দশটার দিকে নান্দাইল উপজেলার আচারগাঁও ইউনিয়নের সিংদই (মধ্যপাড়া) গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বর্তমানে গুরুতর আহত আমিনুল ইসলাম আশংকাজনক অবস্থায় ময়মনসিংহ  মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

ঘটনার পরপরই স্থানীয় জনতা শিক্ষক আবুল কালাম ওরফে হিরাম মাস্টার, তার পুত্র অমিত ও স্ত্রী রওশন আরাকে ঘরের ভিতর আটক করে। পরে নান্দাইল মডেল থানা পুলিশ খবর পেয়ে তাদেরকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে এবং সেখানের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আহত আমিনুল ইসলাম সিংদই মধ্যপাড়া গ্রামের মৃত নজরুল ইসলামের ছেলে। তিনি খোকন মিয়ার পুত্র তুহিনের আপন চাচাতো ভাই। দীর্ঘদিন যাবত তুহিন (১৯) এর সাথে একই গ্রামের মৃত আ. বারেকের পুত্র সুনু মিয়ার কন্যা সারমিন আক্তারের (১৫) প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। তারা দুইজনেই সম্পর্কে প্রতিবেশী চাচাত ভাই-বোন হন। গত ৪/৫দিন পূর্বে তারা পালিয়ে বিয়ে করেন। বিষয়টি জানতে পেরে গতকাল রবিবার মেয়ের পরিবারের সদস্যরা ছেলের বাড়িতে গিয়ে বাড়ি-ঘরে আগুন লাগানোসহ খুন করার হুমকী দেয়। এতে আমিনুল ইসলাম প্রতিবাদ করায় সারমিন আক্তারের আপন চাচা হাওলাপাড়া দাখিল মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক আবুল কালাম ওরফে হিরাম মাস্টার খুবই ক্ষিপ্ত হন।

সোমবার সকালে তুহিনের চাচাতো ভাই আমিনুল ইসলাম বাড়ি থেকে দোকানে যাবার পথে হিরাম মাস্টার তাকে বাড়িতে ডেকে এনে ছুরিকাঘাত করে এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেন। নান্দাইল মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমান আকন্দ বিডিচ্যানেলফোরকে জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। বর্তমানে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে পরবর্তীতে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পোষ্ট এর সময় 4 weeks by Ahmad Farid

নিচে কমেন্ট করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে